ভেঙ্গে পড়েছেন মাহিরা!

ভেঙ্গে পড়েছেন মাহিরা! সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৭ ০ comments

রঙিন ডেস্ক : রণবীর কাপুরের সাথে নিউইয়র্কের রাস্তায় ধুমপান করার ছবি ইন্টারনেটে ভাইরাল হবার পর  ‘রইস’ খ্যাত পাকিস্তানী অভিনেত্রী মাহিরা খান ভেঙ্গে পড়েছেন। এই ঘটনার জের ধরে মাহিরা এতটাই হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন যে তিনি মিরা শেঠির নতুন  ছবির শুটিং’ এর কাজেও যেতে পারছেন না।তিনি শারীরিক ও মানসিক ভাবে খারাপ সময় পার করছেন।

ran-1সম্প্রতি মাহিরার খোলামেলা কাপড় পরিধান করে নিউইয়র্কের রাস্তায় রণবীর কাপুরের সাথে ধুমপান করার ছবি ইন্টারনেটে ভাইরাল হবার পর মাহিরাকে অনেক বাজে মন্তব্য শুনতে হয়েছে তার ভক্ত অনুরাগীদের কাছ থেকে। প্রিয় অভিনেত্রীকে যেন তারা কখনোই এভাবে দেখতে চাননি। সেই ক্ষোভ থেকেই মাহিরাকে নিয়ে বিভিন্ন কটু কথা বলা হচ্ছে। আর এই পুরো ব্যাপারটি মাহিরা স্বাভাবিকভাবে নিতে পারছেন না।

মাহিরার একটি ঘনিষ্ট সূত্র মিডিয়াকে জানায়, বর্তমানে মাহিরা বেশ খারাপ সময়ের মধ্য দিয়েই দিন পার করছেন। এমনকি তিনি শুটিংয়েও যেতে পারছেন না।

সূত্রমতে, মাহিরাকে সামাজিক ভাবে হেয় করার জন্যই  একটি মহল ইচ্ছাকৃতভাবেই ছবিগুলো প্রকাশ করেছে। সন্দেহ করা হচ্ছে বলিউডেরই কোনো তারকা এই ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত রয়েছে। মাহিরা একজন মেয়ে বলে তাকেই এই সমালোচনার ঝড় বেশি সইতে হচ্ছে। সে একজন মেয়ে আর তার কোনো অধিকার নেই খোলা আকাশের নিচে নির্লজ্জের মতো ধুমপান করার।

তবে এই দুর্দিনেও মাহিরার পাশে বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন কয়েকজন। তার মধ্যে একজন হলেন, আদনান আনসারী যিনি একজন সেলিব্রিটি মেকাপ আর্টিস্ট। তিনি টুইটারে বলেছেন, কেউ যদি আমার প্রিয় বন্ধু মাহিরাকে নিয়ে একটা বাজে কথাও বলে তাহলে আমার চেয়ে খারাপ আর কেউ হবেনা।

আরেকটি টুইটে তিনি বলেছেন, ইন্ডাস্ট্রির সবচেয়ে ভাল আর ভদ্র মানুষদের একজন হলেন মাহিরা। তাকে ভালবাসুন আর দয়া করে থামুন।

আদনান আনসারী ছাড়াও আলী জাফর এবং হুমাইমা মল্লিক মাহিরার পাশে দাড়িয়েছেন। আলী জাফর একটি খোলা চিঠিতে বলেছেন, ‘একি হয়েছে আমাদের? আমরা কি আমাদের বিবেক ও নৈতিকতা হারিয়ে ফেলেছি? আমাদেরকে কি নিজেদের অবস্থান ভুলে গিয়ে, সকল মনুষ্যত্ব ভুলে গিয়ে কাউকে নিয়ে সমালোচনা করতেই হবে? কাউকে তার প্রাপ্য সম্মানটা না দিলেই নয়? যতক্ষণ পর্যন্ত না কারো ক্ষতির কারণ হচ্ছে, সকল মেয়েরই অধিকার আছে অন্যসব পুরুষের মত নিজের মনমতো চলাফেরা করার।’

আলী জাফর তার লেখার সমাপ্তিতে বলেন ‘আসলে অন্যের প্রতি আমাদের ব্যবহারই আমাদের পরিচয় প্রকাশ করে। এমনভাবে ব্যবহার করুন যা দিয়ে আপনার চরিত্র মাপা হবে। অযথা অন্যকে নিয়ে সমালোচনা করবেন না।’

হুমাইমা মল্লিকও মাহিরাকে সাহস দিয়ে বলেন, ‘তুমি যেভাবে চাও সেভাবে চলো। লোকের কথায় কান দিওনা।’

সূত্র : স্পটবয়

নিমনী/ এএইচ

এসজেডকে

No Comments so far

Jump into a conversation

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

Your data will be safe!Your e-mail address will not be published. Also other data will not be shared with third person.