‘সবার কাছে স্বাধীনতার সুফল পৌঁছে দিতে কাজ করছে সরকার’

‘সবার কাছে স্বাধীনতার সুফল পৌঁছে দিতে কাজ করছে সরকার’ মার্চ ২৫, ২০১৯ ০ comments
pm hasina

ছবি- সংগৃহীত

 

রঙিন ডেস্ক: আওয়ামী লীগ সরকারের প্রধান লক্ষ্য দেশের প্রত্যেক গ্রাম ও ঘরে ঘরে স্বাধীনতার সুফল পৌঁছে দেওয়া বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রতিটি মানুষের জীবনমান উন্নয়ন হবে; কেউ ক্ষুধার্ত, গৃহহীন থাকবে না ও চিকিৎসাবঞ্চিত রইবে না। প্রতিটি মানুষের জীবন অর্থপূর্ণ, সুন্দর ও উন্নত হবে। এটি আমাদের লক্ষ্য এবং তা বাস্তবায়নে সরকার কাজ করে যাচ্ছে।

সোমবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ১৩ ব্যক্তি ও একটি প্রতিষ্ঠানকে স্বাধীনতা পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, উন্নত দেশ হিসেবে বিশ্বে বাংলাদেশের একটা মর্জাদার অবস্থানের লক্ষ্যে আমরা কাজ করছি। একটা সময় বাংলাদেশকে দুর্ভিক্ষের দেশ, ঘূর্ণিঝড়ের দেশ বলতো। কিন্তু আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর আর্থসামাজিক উন্নতিতে অবদান রেখে চলেছে। আমরা এ অর্থ বছরে এখন প্রবৃদ্ধি ৮ এর ঘরে নিয়ে যেতে পেরেছি এবং মাথাপিছু আয় ১ হাজার ৯০৯ মার্কিন ডলার অর্জন করতে যাচ্ছি।

আরো পড়ুন: বাংলাদেশে-পাকিস্তানের গণহত্যার বিষয়টি তুলে ধরবে জাতিসংঘ

আজ প্রধানমন্ত্রী দেশের ১৩ বিশিষ্ট ব্যক্তি ও একটি প্রতিষ্ঠানকে নিজ নিজ ক্ষেত্রে গৌরবময় এবং অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ তাদের হাতে স্বাধীনতা পুরস্কার-২০১৯ তুলে দেন।

পদকপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা হলেন- স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধে শহীদ বুদ্ধিজীবী মোফাজ্জ্বল হায়দার চৌধুরী (মরণোত্তর), শহীদ এটিএম জাফর আলম (মরণোত্তর), একেএম মোজাম্মেল হক, ইঞ্জি. মোশাররফ হোসেন, ড. কাজী মিসবাহুন নাহার, আবদুল খালেক (মরণোত্তর) ও অধ্যাপক মোহাম্মাদ খালেদ (মরণোত্তর), শওকত আলী খান (মরণোত্তর), সংস্কৃতিতে মুর্তজা বশীর, সাহিত্যে হাসান আজিজুল হক, চিকিৎসা বিজ্ঞানে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নুরুন্নাহার ফাতেমা বেগম, সমাজসেবায় ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমেদ, গবেষণা ও প্রশিক্ষণে অধ্যাপক ড. হাসিনা খান।

আর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব অ্যাগ্রিকালচারকে (বিআইএনএ) পুরস্কৃত করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী এ সময় মানব কল্যাণে যারা অবদান রাখে তাদের খুঁজে বের করতে হবে বলে জানান। এছাড়া ২৫ মার্চকে গণহত্যা দিবস হিসেবে যেনো আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি দেয়া হয়, তার প্রচেষ্টা করতে সবার প্রতি আহ্বান জানান।

এসএল/এএইচ

No Comments so far

Jump into a conversation

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

Your data will be safe!Your e-mail address will not be published. Also other data will not be shared with third person.