কুকের বিদায়ে ইংল্যান্ডের জয় উপহার

কুকের বিদায়ে ইংল্যান্ডের জয় উপহার সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৮ ০ comments
Cook's return to England was a great gift

কুকের বিদায়ে ইংল্যান্ডের জয় উপহার

রঙিন ডেস্ক : ওভালের টেস্ট দিয়ে সাদা জার্সি পরে বাইশ গজে আর না নামার ঘোষণা দিয়েছিলেন ইংল্যান্ডের ওপেনার অ্যালিস্টার কুক। আর তাই ভারতের বিপক্ষে ৪-১ ব্যবধানে জয়টা কুকের বিদায় উপহার দিতে চেয়েছিলেন অধিনায়ক জো রুট। সেটাই করে দেখালেন রুটের দল।

ভারতের হয়ে লোকেশ রাহুল ও ঋষভ পান্তের লড়াইয়ের পরও ওভালে শেষ টেস্ট ইংল্যান্ড জিতেছে ১১৮ রানে। সেই সঙ্গে ভারত হেরেছে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ৪-১ ব্যবধানে।

ওভাল টেস্টে অভিষেকের নীল ক্যাপটা আর মাথায় দিয়ে মাঠে নামতে হবে না অ্যালিস্টার কুককে। সাদা জার্সিতে দীর্ঘ এক যুগের ক্যারিয়ারের ইতি টেনে দিলেন ওভালেই।

কুকের বিদায়টা এক কথায় রাজকীয়। টেস্ট অভিষেকের ম্যাচেও যেমনটা খেলেছিলেন, ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচটাও ঠিক তেমনই খেললেন।
২০০৬ সালে ভারতের বিপক্ষে নাগপুরে অভিষেক হয় কুকের। সেদিন ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্ট খেলতে নেমে প্রথম ইনিংসে খেলেছিলেন অর্ধশত রানের ইনিংস। দ্বিতীয় ইনিংসে করেছিলেন অপরাজিত ১০৪ রান।

আরো পড়ুন:- ‘১০ নম্বর জার্সি মেসির অপেক্ষায় রয়েছে’

অবসরে যাবার সময়ে আবারো বিপক্ষ দল সেই ভারত। ওভালে প্রথম ইনিংসে ৭১ আর দ্বিতীয় ইনিংসে খেললেন ১৪৭ রানের ইনিংস।

এর আগে প্রথম আর শেষ ম্যাচে অর্ধশতক ও শতকের ইনিংস খেলেছিলেন মাত্র চারজন ক্রিকেটার।

রেগি ডাফ (১৯০২-১৯০৫), বিল পন্সফোর্ড (১৯২৪-১৯৩৪), গ্রেগ চ্যাপেল (১৯৭০-১৯৮৪) আর ভারতের মোহাম্মদ আজহারউদ্দীন (১৯৮৪-২০০০)। সবশেষ যোগ হলেন অ্যালিস্টার কুক।

পাঁচ ম্যাচ সিরিজে ৩-১ ম্যাচে আগেই সিরিজ জিতে নিয়েছিল ইংল্যান্ড। পঞ্চম ম্যাচটা স্বাগতিকদের জন্য এতটা গুরুত্বপূর্ণ না হলেও কুকের অবসরের ঘোষণার পর এই ম্যাচেও যেন ভারতকে ছাড় দিতে নারাজ ইংলিশরা।

ওভালে টস জিতে ইংল্যান্ড সিদ্ধান্ত নেয় প্রথমে ব্যাটিংয়ের। প্রথম ইনিংসে কুকের করা ৭১ আর জশ বাটলারের ৮৯ রানে ভর করে ৩২২ রান সংগ্রহ করে স্বাগতিকরা।
জবাবে ভারত নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে সংগ্রহ করে ২৯২ রান। ইংলিশ বোলারদের তোপের মুখেও লোয়ার অর্ডারে খেলতে নামা রবীন্দ্র জাদেজা খেলেন ৮৬ রানের মান বাঁচানো ইনিংস।

দ্বিতীয় ইনিংসে ৪০ রানে এগিয়ে থেকে ইংলিশ ব্যাটসম্যানরা যোগ করেন আরো ৪২৩ রান।

প্রথম ইনিংসে অর্ধশতক হাঁকানো অ্যালিস্টার কুক দ্বিতীয় ইনিংসে তুলে নেন শতক। ২৮৬ বলের লম্বা ইনিংসে ১৪ চারে করেন ১৪৭ রান। ইংলিশ অধিনায়ক জো রুটও তুলে নেন শত রান। রুট করেন ১৯০ বলে ১২৫ রান।
প্রথম ইনিংসের ৪০ আর দ্বিতীয় ইনিংসের ৪২৩ রানে ভারতীয়দের সামনে লিড দাঁড়ায় ৪৬৩ রানের। বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ভারতীয় ওপেনার লোকেশ রাহুল ঠাণ্ডা মাথায় রান তুলতে থাকলেও বাকিরা ছিলেন উইকেটে আসা-যাওয়ার মিছিলে।

অন্যদের মতো এদিন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলিও নিজেকে ভাসিয়ে দেন ব্যর্থদের দলে। বিরাটের শূন্য রানে ফেরার পর ঋশভ পান্ত আর রাহুল মিলে চেষ্টা করেন দিন পার করার। দুজনেই খেলেন শত রানের ইনিংস। রাহুল করেন ১৪৯ আর পান্ত করে ১১৪ রান।

এই দু’জনের বিদায়ের পর বাকি ব্যাটসম্যানরা ব্যর্থ হন ধৈর্যের পরীক্ষা দিতে। টেনেটুনে ৩৪৫ রানে থামে ভারতের ইনিংস।

১১৮ রানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ইংলিশরা। দলের জয়ে অবদান রাখায় বিদায়ী ম্যাচে ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরষ্কার উঠে অ্যালিস্টার কুকের হাতে।

আরপি/ এএইচ

এসজেডকে

No Comments so far

Jump into a conversation

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

Your data will be safe!Your e-mail address will not be published. Also other data will not be shared with third person.