৮৭ বছরের চারুলতার চরণতলে কোহলিরা

৮৭ বছরের চারুলতার চরণতলে কোহলিরা জুলাই ৩, ২০১৯ ০ comments
Virat Kohli

ছবি- টুইটার

রঙিন ডেস্ক: ক্রিকেট খেলাটা আজ শতাধিক দেশের মধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে। প্রায় সব দেশেই খেলাটি নিয়ে অনুরাগীদের উন্মাদা লক্ষ্য করার মতো। তবে ভারতীয় ক্রিকেট অনুরাগীদের উন্মাদার কাছে বাকি ১২৪টি দেশ যেন অনেকটা পিছিয়ে।

সেদেশে ক্রিকেটে শুধু খেলা নয়, ধর্ম সমান। বিশ্বকাপ হোক কিংবা ঘরের মাঠের খেলা; ক্রিকেট পাগল ভারতবাসী দলের জয়ের জন্য কত কি-ই না করে। এবারের বিশ্বকাপেও চোখে পড়লো এমনই এক ক্রিকেট পাগল। তবে তিনি ভারতবাসী নন, ভারতীয় বংশোদ্ভুত ইংল্যান্ডের নাগরিক চারুলতা প্যাটেল।

১৯৩২ সালে তাঞ্জানিয়ায় জন্মগ্রহণ করা চারুলতা দেশের প্রতি গভীর টান ও আবেগ থাকায় বারবারই ভারতের খেলা দেখতে ছুটে আসেন তিনি। ১৯৮৩ বিশ্বকাপে লর্ডসে যেবার প্রথমবারে মতো শিরোপা জেতে ভারত তখন মাঠে বসেই খেলা দেখেছেন তিনি।

এবারের বিশ্বকাপেও তার ব্যতিক্রম হয়নি। গতকাল (২ জুলাই) বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচে মাঠের নায়ক ছিলেন বিরাট কোহলি-রোহিত শর্মারা। তবে মাঠের বাইরে নায়ক একজনই। ৮৭ বছর বয়সী চারুলতা। হুইল চেয়ারে বসে ভারত-বাংলাদেশ মহারণ দেখতে এসেছিলেন তিনি। কেবল খেলাই দেখেননি অষ্টাদশীর মতো ভেপু বাজিয়ে মোহিত করেছেন সবাইকে। ম্যাচ শেষে গ্যালারির এই নায়কের সঙ্গে দেখা করেছেন বিরাট-রোহিতরা। বিশ্বকাপ জয়ের জন্য আর্শিবাদও নিয়েছেন তারা।

আরো পড়ুন: গুগল ম্যাপ দেখে ফাঁকা মাঠে গিয়ে থামল গাড়ি

মঙ্গলবার খেলা চালাকালে ভারতের সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী খুজে বের করেন বৃদ্ধা এই ক্রিকেট সমর্থককে। এরপর নিমেষের মধ্যে চারুলতার ভেপু বাজানোর ছবি সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইটে ভাইরাল হয়ে যায়। ভারত এবং বাংলাদেশের সমর্থকরা তার সঙ্গে সেলফি তুলে পোস্ট করতে থাকেন ফেসবুক-টুইটারে। ইনস্টাগ্রামে চারুলতার বড় আকারের ভেঁপু বাজানোর ছবি পোস্ট করেন প্রাক্তন ইংল্যান্ড অধিনায়ক মাইকেল ভন। তিনি বলেন, ‘এবারের বিশ্বকাপের সেরা ছবি এটাই।’

ম্যাচ শেষে এই ভক্তের কাছে ছুটে যান ভারতীয় দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। হুইল চেয়ারে বসে থাকা চারুলতার পায়ের কাছে বসে কথা বলেন। চারুলতা কোহলির মাথায় হাত রেখে আশির্বাদ করেন। ম্যাচের নায়ক রোহিত শর্মাও দোয়া পেয়েছেন ৮৭ বছর বয়সী চারুলতার।

উল্লেখ্য, চারুলতা প্যাটেলের সন্তানরাও ক্রিকেটার ছিলেন। কাউন্টি ক্রিকেট দল সারের হয়ে খেলেছেন তারা।

এসএল/এএইচ

No Comments so far

Jump into a conversation

No Comments Yet!

You can be the one to start a conversation.

Your data will be safe!Your e-mail address will not be published. Also other data will not be shared with third person.